Cart

Showing 1–12 of 14 results

Sale
0 out of 5

ইভ গ্রীন

৳ 400.00 ৳ 320.00
অদ্ভূত এক অকালপ্রয়াত মায়ের কাছ থেকে ইভাঞ্জেলীন চলে আসে পুরনো গীর্জাগন্ধী ধুলোভরা একখানা বাড়িতে, ওয়েলসে তার নানাবাড়িতে, সেখানকার ফার্মে উদ্গ্রীব প্রাণীদের ভাপমেশা শ্বাসের সুকোমল গন্ধ শুঁকে, কর্মব্যস্ত নানীর পেটের একচিলতে মন্ডাকার মেদ দেখতে দেখতে, নানার সাথে চিনিভরা মালাই চা খেতে খেতে, খামারবাড়ি আর মালখানার ভিতরবাইরে লুকোচুরি খেলতে খেলতে শৈশব কাটাতে থাকে সে। সে কেবল বুঝতে পারে, তার আইরিশ বাবাকে নিয়ে...
Sale
0 out of 5

ঋদ্ধি

৳ 250.00 ৳ 200.00
এ এক নয় বছুরে ছেলের গল্প। গল্পে তার বাবা নেই; কিন্তু গোটা গল্পই সে আর তার মৃত বাবাকে ঘিরে। কিছুটা লৌকিক অনেকটা অলৌকিকতার সহঅবস্থান। শিশুমনের জটিল রহস্য ভেদ করতে এগিয়ে আসেন গোমড়ামুখো এক কালো সাহেব, দানবিক চেহারায় অনেকখানি মানবিকতা নিয়ে এক জগদ্বিখ্যাত মনস্তত্ববিদ, প্যারানরমাল সাইকোলজী যার মূল বিষয়। গল্পের জটিল ধাঁধা বোনা আছে ছোট এক মফস্বল শহরের প্রতাপশালী সৈয়দ হাশিম...
Sale
0 out of 5

এ ঘরে কোনো খুনি নেই

৳ 200.00 ৳ 160.00
Sale
0 out of 5

এখানে আকাশ নীল

৳ 270.00 ৳ 216.00
অজস্র ভাঙা-গড়ার প্রলয়ের ভেতর দিয়ে এগিয়ে চলে জীবন। যত আঘাতই আসুক, যত বাঁধাই পথ আগলে দাঁড়াক, জীবন থামে না। কখনো না। কারো জন্য না। তবে হ্যাঁ, জীবন চলার বাঁকে বাঁকে কিছু বিষয়, কিছু মানুষ, কিছু ঘটনা, কিছু জিনিস কেটে যায় স্থায়ী আঁঁচড়। এরা বেঁচে থাকে বুকের গহীনে। প্রতিটি মানুষের অন্তঃপুরে এদের হয় স্থায়ী নিবাস। ‘এখানে আকাশ নীল’ মানব জীবনের নানা...
Sale
0 out of 5

কাগজের নৌকা

৳ 200.00 ৳ 160.00
আমার একটি বউ এবং দুটি কন্যা আছে। গাড়ি নেই, ফ্ল্যাট নেই, মাথায় নানা ছকের গল্পের প্লট ছাড়া ঢাকা অদূরে, অগভীর জলের নিচে অন্য কোনো স্থাবর প্লট নেই। তবে ৩৫ বছরে দুটি সন্তান, একটি বউ, একটু বেশি হয়ে গেল না? তা হয়তো গেল। আমি বিয়ে করেছি ম্যালা আগে। ইউনিভার্সিটির ফার্স্ট ইয়ারেই। সহপাঠীকে, অবশ্যই প্রেম-ভালোবাসার কেস। সে অন্য গল্প এবং অনেক পুরোনো...
Sale
0 out of 5

ঘূর্ণির ভেতর জীবন

৳ 150.00 ৳ 120.00
ম্যানহোলে পড়ে যাওয়া একজন মানুষ, যার মরে যাওয়ারই কথা, কিন্তু যে যায়নি। বরঙ ম্যানহোলের উপরে স্ল্যাব, তার উপর বহমান জীবনের বিচিত্র কাহিনী তাকে একের পর এক এসে ঘিরে ধরে। তার মনে হয় সে বেচে যাবে, এসব তাকে রক্ষা করারই আয়োজন। আবার এমন সব ঘটনা ঘরে, তারে তার মনে হয় বেচে যাওয়ার কোন কারণ তো নেই। এইভাবে ঘূর্ণি তৈরি হওয়া একটি...
Sale
0 out of 5

দুর্ঘটনায় কবি

৳ 300.00 ৳ 240.00
আমেরিকান ইগল থেকে লেভিস্ত্রসের বোর্ডরুমে স্বাচ্ছন্দ্যে বিচরণ করা, বাংলাদেশের গারমেন্টস শিল্পের একজন শীর্ষ নির্বাহী বাংলাটেক্স গ্রুপের মার্চেন্ডাইজিং ডাইরেক্টর সারোয়ারকে বারবার ফিরে ডাকে তার পূর্ব পরিচয়। তার মননে এখনো সে চাঁদপুর ডিগ্রি কলেজের ফুটবল টিমের গোলকিপার মাত্র— যার বেড়ে ওঠা মিঠাপুকুর গ্রামে এবং মফস্বলের সরলতায়— দশটা গোল বাঁচিয়ে একটা গোল খেলে সে হেরে যাবে। তার শ্রেণিসংকোচ কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করে, আর্থিক...
Sale
0 out of 5

পান্থজন

৳ 150.00 ৳ 120.00
Sale
0 out of 5

বান্ধাল

৳ 500.00 ৳ 400.00
তারেক খান বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের বিস্তীর্ণ ভূভাগ আর জনজীবনকে বলিষ্ঠ হাতে তুলে এনেছেন তার বান্ধাল নামের এই উচ্চাভিলাষী প্রকল্পে। বড় আকার এ উচ্চভিলাষী প্রকল্পের বাইয়ের দিক সবটুকু নয়; অন্তরের প্রযত্নেও উপন্যাসটি যথেষ্ট পরিমাণে ধনী। সেই প্রযত্নের সঙ্গী হয়েছে মানুষের প্রাত্যহিকতা ও সমগ্রতাকে একসূত্রে বাধতে পারার সাফল্য এ উপন্যাসের অসংখ্য মানুষ ব্যক্তিগতভাবেই বাচে বা মরে, কিন্ত সামষ্টিক জীবনের নানা জটিল কায়কারবার...
Sale
0 out of 5

বিবর্ণ ক্যানভাস

৳ 100.00 ৳ 80.00
বাবার নিষেধ অগ্রাহ্য করে দিয়া বিয়ে করে তার ভালোবাসার মানুষ কামরুলকে। সেই কামরুল যে একজন প্রতারক দিয়া তা জানত না। কামরুল চাকুরি না করে মানুষের সাথে প্রতারণা করে সংসার চালাত। দিয়ার বাবাও একজন আদম ব্যবসায়ী। ঘটনাচক্রে কামরুল আরেক প্রতারকচক্রের খাপ্পর পড়ে এবং জেলে যায়। দিয়া দিশাহারা হয়ে পড়ে। এ সময়ে তার বাবা দুবাই থেকে ফোন করে তাকে সমস্যা থেকে উদ্ধারের...
Sale
0 out of 5

ভাঙনের নেই পারাপার

৳ 200.00 ৳ 160.00
হারিয়ে যাওয়া একজন মানুষ। জন্ম-পরিচয়হীন একটি ছেলে। বদলে যাওয়া রাজনৈতিক সংস্কৃতি। বদলে যাওয়া শৈশব। পাল্টে যাওয়া যুগধর্ম। প্রেম আর প্রকৃতির নিষ্ঠুর দোলাচাল। চরিত্রগুলোর আত্মকথন আর মনোজাগতিক আলেখ্য নিয়ে সমকালীন বাংলাদেশের এক বহু বর্ণিল চিত্রণ প্রয়াস ‘ভাঙনের নেই পারাপার’। হস্তলিপিঃকামরুল ইসলাম জুয়েল (ভাঙনের নেই পারাপার)
Sale
0 out of 5

ভুবন ডাঙায়

৳ 150.00 ৳ 120.00
পাগলা মাজারের ঝিলপাড় এলাকায় আসার পরেই আমার জীবনের সব অদ্ভুত ঘটনাগুলো ঘটতে থাকে। কাশেম খানের মেয়ে রুমাকে আমি পড়াতাম। রুমা মেয়ে হিসেবে খুব ভালো। আমি ছেলে হিসেবে মন্দ না। পুরষালি কিছু মন্দ গুণ হয়ত আমার মধ্যেও ছিল। কিন্তু তারপরেও আমি রুমাদের বাসায় পড়াতে যেতাম রুমাকে দেখার জন্য কিংবা তার প্রতি আমার কোনো দুর্বলতার জন্য না। রুমা যদিও আমাকে অসম্ভব পছন্দ...
Loading...