Cart

Best Seller

গবেষণায় হাতেখড়ি

Availability: In stock

৳ 250.00 ৳ 200.00

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ বইটির ভূমিকায় লিখেছেন, “রাগিব হাসান আমাদের বিভাগ থেকে প্রথম স্থান অধিকার করে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি শুধু ছাত্র হিসাবেই ভালো নন— তার সমাজ-ভাবনা, সবাইকে নিয়ে চলার আকাঙ্ক্ষা অত্যন্ত প্রশংসনীয় ও অনুকরণীয়।

কোনো এক সময়ে আমার সুযোগ হয়েছিল তার গবেষণা-কর্মের সাক্ষী থাকার। তখনই দেখেছি তার গবেষণা করার প্রতিভাই যে শুধু আছে তা নয়— তার আগ্রহও সীমাহীন। চ্যালেঞ্জ গ্রহণে তিনি পিছপা হন না।

আইনস্টাইন বলেছেন, তিনি খুব তীক্ষধী নন— তবে একটি সমস্যা নিয়ে তিনি দীর্ঘক্ষণ লেগে থাকতে পারেন। গবেষণায় সফলতা অর্জন করতে যদি কোন গোপন মূলমন্ত্র থাকে তবে তাহলো লেগে থাকা। রাগিব অত্যন্ত কর্মঠ এবং সক্রিয়।”

রাগিব হাসান নিজেই একজন আন্তর্জাতিক মানের গবেষক। গোল্ড মেডেল পাওয়া কম্পিউটার বিজ্ঞানের সেরা ছাত্রটি এই বইতে গবেষণার বিষয়, পদ্ধতি থেকে শুরু করে ফান্ড সংগ্রহের উপায় পর্যন্ত পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনা করেছেন। ফলে দেশে গবেষণা করতে আগ্রহীগণ তো বটেই— যারা বিদেশের খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে গবেষণা করতে ইচ্ছুক তাদের জন্যও বইটি অত্যন্ত উপকারী। গবেষণা-কর্মের নানামাত্রিক দিক নিয়ে এমন গ্রন্থ সম্ভবত বাংলাভাষায় এটাই প্রথম। প্রথম প্রকাশের পরপরই বইটি বেস্ট সেলার হয়। বর্তমান সংস্করণেও সেই জনপ্রিয়তা অক্ষুণ্ন রয়েছে।

Quantity :
Compare

ড. রাগিব হাসান একজন কম্পিউটার বিজ্ঞানী ও শিক্ষক। সরকারি চাকুরে বাবা মো. শামসুল হুদা ও স্কুল শিক্ষিকা মা রেবেকা সুলতানার প্রথম সন্তান রাগিবের জন্ম চট্টগ্রামে। স্কুলজীবন থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ পর্যায়— সবখানেই রাগিব অর্জন করেছেন অসাধারণ ভালো ফলাফল। পড়াশোনা করেছেন চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল ও চট্টগ্রাম কলেজে।

বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসিতে চতুর্থ ও এইচএসসিতে প্রথম মেধাস্থান অধিকার করেন। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম স্থান লাভ করে তিনি কম্পিউটার প্রকৌশল বিভাগে ভর্তি হন। পুরো বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ জিপিএ নিয়ে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। লাভ করেন চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল।

বুয়েটে কিছুদিন শিক্ষকতার পরে উচ্চশিক্ষার্থে যুক্তরাষ্ট্রে যান। সে দেশের অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিভার্সিটি অব ইলিনয় অ্যাট আরবানা শ্যাম্পেইন থেকে কম্পিউটার নিরাপত্তার ওপরে স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন।

বর্তমানে তিনি ইউনিভার্সিটি অব আলাবামা অ্যাট বার্মিংহামের কম্পিউটার বিজ্ঞানের সহযোগী অধ্যাপক এবং সিক্রেটল্যাব নামের গবেষণাগারের প্রতিষ্ঠাতা। গবেষণা করছেন কম্পিউটার নিরাপত্তা ও ক্লাউড কম্পিউটিং নিয়ে। গবেষণার উৎকর্ষের জন্য ২০১৪ সালে মার্কিন জাতীয় বিজ্ঞান ফাউন্ডেশন থেকে ক্যারিয়ার পুরস্কার।

পেশায় কম্পিউটার বিজ্ঞানী হলেও রাগিবের মন পড়ে থাকে বাংলায়, বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির দিকে। বাংলা উইকিপিডিয়ার শুরু থেকেই নেতৃত্ব দিয়েছেন। ২০০৫ থেকেই বাংলা ব্লগিংয়ের সাথে জড়িত। সবার কাছে জ্ঞানের আলো ছড়ানোর জন্য অনলাইনে বাংলায় মুক্তজ্ঞানের সাইট শিক্ষক.কম (www.shikkhok.com) প্রতিষ্ঠা করেছেন ২০১২ সালে। এর জন্য ২০১২ সালে পেয়েছেন Google RISE Award, Information Society Innovation Fund Award, Internet Society Grant, mBillionth Award। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের জন্য ব্রেইল ও অডিও বই বানানোর ক্রাউডসোর্সড প্রজেক্ট বাংলাব্রেইল প্রতিষ্ঠা করেছেন ২০১৩ সালে। সে জন্য ২০১৪ সালে পেয়েছেন  ডয়চে ভেলের The Best of Blogs and Online Activism (The BoBs) Award।

মনোচিকিৎসক স্ত্রী জারিয়া আফরিন চৌধুরী, ছেলে যায়ান ও মেয়ে রিনীতা যোয়ীকে নিয়ে রাগিব হাসান যুক্তরাষ্ট্রের বার্মিংহাম শহরে বসবাস করেন।

যোগাযোগ—

ইমেইল : ragibhasan@gmail.com

ফেসবুক প্রোফাইল : fb.com/ragibhasan, পেইজ: . . . . . .

ওয়েবসাইট : www.ragibhasan.com, www.elochinta.com

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ বইটির ভূমিকায় লিখেছেন, “রাগিব হাসান আমাদের বিভাগ থেকে প্রথম স্থান অধিকার করে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি শুধু ছাত্র হিসাবেই ভালো নন— তার সমাজ-ভাবনা, সবাইকে নিয়ে চলার আকাঙ্ক্ষা অত্যন্ত প্রশংসনীয় ও অনুকরণীয়।

কোনো এক সময়ে আমার সুযোগ হয়েছিল তার গবেষণা-কর্মের সাক্ষী থাকার। তখনই দেখেছি তার গবেষণা করার প্রতিভাই যে শুধু আছে তা নয়— তার আগ্রহও সীমাহীন। চ্যালেঞ্জ গ্রহণে তিনি পিছপা হন না।

আইনস্টাইন বলেছেন, তিনি খুব তীক্ষধী নন— তবে একটি সমস্যা নিয়ে তিনি দীর্ঘক্ষণ লেগে থাকতে পারেন। গবেষণায় সফলতা অর্জন করতে যদি কোন গোপন মূলমন্ত্র থাকে তবে তাহলো লেগে থাকা। রাগিব অত্যন্ত কর্মঠ এবং সক্রিয়।”

রাগিব হাসান নিজেই একজন আন্তর্জাতিক মানের গবেষক। গোল্ড মেডেল পাওয়া কম্পিউটার বিজ্ঞানের সেরা ছাত্রটি এই বইতে গবেষণার বিষয়, পদ্ধতি থেকে শুরু করে ফান্ড সংগ্রহের উপায় পর্যন্ত পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনা করেছেন। ফলে দেশে গবেষণা করতে আগ্রহীগণ তো বটেই— যারা বিদেশের খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে গবেষণা করতে ইচ্ছুক তাদের জন্যও বইটি অত্যন্ত উপকারী।

গবেষণা-কর্মের নানামাত্রিক দিক নিয়ে এমন গ্রন্থ সম্ভবত বাংলাভাষায় এটাই প্রথম।

প্রথম প্রকাশের পরপরই বইটি বেস্ট সেলার হয়। বর্তমান সংস্করণেও সেই জনপ্রিয়তা অক্ষুণ্ন রয়েছে।

ISBN-13:

978-984-8875-88-9

Publisher:

Adarsha

Pages:

120

Publication Year:

2015

Dimensions:

8.5×5.5×0.5 inch

Language:

Bengali

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “গবেষণায় হাতেখড়ি”

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading...